Categories
Puzzle

কবি কঙ্কণ মুকুন্দরাম চক্রবর্তীর রচিত ধাঁধা। ধাঁধার সংখ্যা : ২১

খৃষ্টীয় ষোড়শ শতাব্দীর শেষভাগে রচিত কবি কঙ্কণ মুকুন্দরাম চক্রবর্তীর “ চণ্ডীমণ্ডল ” কাব্যে বেশ কয়টি ধাঁধার উল্লেখ আছে। এগুলো যে শুধু প্রায় চারশত বছরের প্রাচীন, তাই নয়, এর মধ্যে যে রসবোধ সৃষ্টি হয়েছ

Get the kotha app

খৃষ্টীয় ষোড়শ শতাব্দীর শেষভাগে রচিত কবি কঙ্কণ মুকুন্দরাম চক্রবর্তীর “ চণ্ডীমণ্ডল ” কাব্যে বেশ কয়টি ধাঁধার উল্লেখ আছে। এগুলো যে শুধু প্রায় চারশত বছরের প্রাচীন, তাই নয়, এর মধ্যে যে রসবোধ সৃষ্টি হয়েছে, তা এ দেশের ধাঁধাগুলির সর্বকালীন বৈশিষ্ট্য । মুকুন্দরামের “ চণ্ডীমঙ্গল “ এ বর্ণিত আছে যে, বাকশক্তি সম্পন্ন এক শুকপক্ষী ব্যাধ কর্তৃক ধৃত হয়ে নির্দেশ মত রাজসভায় আসলে, নিজের বিদ্যাবুদ্ধির পরিচয় দিতে গিয়ে রাজাকে ধাঁধা জিজ্ঞাসা করতে লাগল, সভাস্থ পণ্ডিতগণ তাদের মীমাংসা করতে লাগল।
ধাঁধাগুলি হল এইরূপ –

★ বিধাতা নির্মাণ ঘরে নাহিক দুয়ার ।
তাহাতে পুরুষ এক বৈসে নিরাহার ।
যখন পুরুষবর হয় বলবান ।
বিধাতার সৃজন ঘর করে খান খান । ( উত্তর : ডিম )

★ মস্তকে করিয়া আনে হয়ে যত্নবান ।
অপরাধ বিনে তার করে অপমান ।
অপমানে গুণ তার কখন না যায় ।
অবশ্য করিয়া দেয় সম্বল উপায় । ( উত্তর : ধান )

★ বিষ্ণুপদ সেবা করে বৈষ্ণব সে নয় ।
গাছ পল্লব নয় কিন্তু অঙ্গে পত্র হয় ।
পণ্ডিতে বুঝিতে পারে দু চারি দিবসে ।
মুখেতে বুঝিতে নারে বৎসর চল্লিশে । ( উত্তর : পাখী )

★ বেগে ধায় রথখান না চলে এক পা ।
চলে সারথি তার পসারিয়া গা ।
হিয়ালী প্রবন্ধে পণ্ডিত দেহ মতি ।
অন্তরীক্ষে যায় রথ ভূতলে সারথি । ( উত্তর : ঘুড়ি )

★ শিরঃ স্থানে নিবসে পুরের দুই সার ।
ভাল মন্দ সভাকার করয়ে বিচার ।
বিচার করিয়া সেই রহে মৌনশালী ।
পুরস্কার করে তার মুখে দিয়ে কালি । ( উত্তর : চক্ষু )

★ তৃষ্ণায় আকুল সেই জল খাইলে মরে ।
স্নেহ নাহি করিলে তিলেক নাহি তরে ।
উগারয়ে অন্য বস্তু অন্য করে পান ।
সখা সঙ্গে মালিঙ্গনে ত্যজয়ে পরাণ । ( উত্তর : প্রদীপ )

★ মৎস্য মকর নহে পানী পানী বুলে ।
হাঙ্গর কুম্ভীর নহে দেখিলে সে গিলে ।
গিলিয়া উগারে সেই দেখে জগজন ।
হিয়ালী প্রবন্ধে পণ্ডিত দেহ মন । ( উত্তর : নৌকা )

★ দেখিতে রূপস দুই মুখ এক কায় ।
এক মুখে উগায়ে আর মুখে খায় ।
মরিলে জীবন পায় হুতাশ পরশে ।
বুঝ হে পণ্ডিত ভাই সমাঝে বৈসে । ( উত্তর : উনুন )

★ বনেতে জনম তার নহে ত হরিণী ।
অনেক আহার করে নাহি খায় পানী ।
বুঝিয়া চলিয়া বার্তা দেয় আসি কানে ।
বীরের কিঙ্কর নহে বুঝহ সিয়ানে । ( উত্তর : মশা )

★ বঙ্গে বৈসে নানা স্থানে ভ্রমে চারি ভাই ।
জীবন কালে পৃথক মরণে এক ঠাই ।
পণ্ডিতে বুঝিতে নারে মুখে কিবা জানে ।
হিয়ালী প্রবন্ধে কবিকঙ্কণ ভণে । ( উত্তর : পাশার গুটি )

★ যোগী নয় সন্ন্যাসী নয় মাথায় হুতাশন ।
ছেলে নয় পিলে নয় ডাকে ঘন ঘন ।
চোর নয় ডাকাত নয় বর্শা মারে বুকে ।
কন্যা নয় পুত্র নয় চুম খায় মুখে । ( উত্তর : হুকা )

★ বৃক্ষ – অগ্রে বৈসে সেই নহে পক্ষজাতি ।
ত্রিলোচন জটাভার নহে পশুপতি ।
নদনদী নয় তার অঙ্গময় কায় ।
রক্তমাংসে জড়িত নয় নারি বলয় । ( উত্তর : নারিকেল )

Get the kotha app

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *