Categories
Bangla Tradition

ঐতিহ্যবাহী আদিবাসী খাবার বাঁশ কোড়লের কথা।

বাঁশ কোড়ল আদিবাসীদের ঐতিহ্যবাহী প্রিয় খাবার । শুধু পাহাড়িদের প্রিয় খাবার না বর্তমানে এটি আন্তর্জাতিক মানের খাদ্য তালিকায় স্থান পেয়েছে।
যুগে যুগে পাহাড়ীরা এই প্রিয় খাবারটি খেয়ে আসছে। পাহাড়িদের পাশাপ

Get the kotha app

বাঁশ কোড়ল আদিবাসীদের ঐতিহ্যবাহী প্রিয় খাবার । শুধু পাহাড়িদের প্রিয় খাবার না বর্তমানে এটি আন্তর্জাতিক মানের খাদ্য তালিকায় স্থান পেয়েছে।
যুগে যুগে পাহাড়ীরা এই প্রিয় খাবারটি খেয়ে আসছে। পাহাড়িদের পাশাপাশি বাঙ্গালিদের ও বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে এই খাবারটি। রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবানে বিভিন্ন স্থান থেকে পর্যটক ঘুরতে আসলে এই খাবারটি খোঁজে। সাধারণত পাহাড়িদের হোটেলে এই খাবারটি পাওয়া যায়। বিভিন্ন আইটেমে খাবারটি তৈরি করা যায়।

এছাড়াও আন্তর্জাতিকভাবে এই খাবার বর্তমানে অতিব জনপ্রিয় একটি মজাদার খাবার। জাপান, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম ,কম্বোজ , ভারত , মিয়ানমার, চীনসহ বিশ্বের অনেক রাষ্ট্রে খাবারটি প্রচলন থাকায় আন্তর্জাতিভাবে বেশ চাহিদা রয়েছে।

থাইল্যান্ডে’ব্যাম্বো সূটস’, জাপানি ভাষায় “তেকেনাকো”, মিয়ানমারে “মায়াহেট”, চীনের ভাষায় ‘ব্যাম্বো স্যুট’, নেপালিদের ভাষায় ‘থামা’, ভিয়েনামিদের’মাং’, আসাম রাজ্যে ‘বাঁহ গাজ/খৰিচা’ , ইন্দোনেশিয়ায় ‘রিবাং’ এবং বাংলাদেশের চাকমা আদিবাসীদের ভাষায় ‘বাচ্চুরি’ মারমা আদিবাসীদের লাকশু অভিহিত করা হয়।

বাঁশ কোড়ল শব্দটি বাঙ্গালিরা ব্যবহার করলেও বাংলাদেশের বিভিন্ন আদিবাসী জনগোষ্ঠিঠির তাদের ঐতিহ্যগত নামটা ব্যবহার করে থাকেন। জুম্মরা সাধারণত ‘নাপ্পি’ নামক সুগন্ধ শুটকি দিয়ে রান্না করে খেতে বেশ পছন্দ করে এছাড়া বাঙ্গালিরা বিভিন্ন রেসিপির সঙ্গে খেতে ভালবাসে । তবে কালের পরিক্রমায় পার্বত্য চট্টগ্রামের বাঙ্গালিরা ও এখন পাহাড়িদের খাদ্যগুলো পছন্দের স্থান হিসেবে বেছে নিয়েছে।

পাহাড়িরা বন থেকে বাঁশ কড়োল মৌসুম অনুযায়ী সংগ্রহ করে থাকে। মৌসুমের উপর নির্ভর করে গ্রামের হাট-বাজারে এই খাদ্যটি পাওয়া যায়। যেমন-রাঙ্গামাটি জেলায়, কলেজ গেইট বাজার,বনরুপা বাজার, বান্দরবানে মগ বাজার, খাগড়াছড়িতে রামগড় এলাকা সহ ইত্যাদিতে স্থানে পাওয়া যায়।

‘বাংলার ঐতিহ্যের কথা’কে কিছু জানাতে এবং জানতে পারসোনাল প্রোফাইলে যোগাযোগ করতে পারেন।
▪Personal Kotha account⤵
🆔 HaBil
https://link.kotha.app/app/user/preview/34bgf66x2

Get the kotha app

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *