Categories
Invention

ইউএসবি ফ্ল্যাশ ড্রাইভ আবিষ্কার।

ট্রেক টেকনোলজি এবং আইবিএম সর্বপ্রথম ইউ এস বি ফ্লাশ ড্রাইভ বাজারে ছাড়ে ২০০০ সালে। ট্রেক টেকনোলজি একটি সিংগাপুরের কম্পানি। ট্রেক টেকনোলজি কর্তৃক প্রথম বাজারজাতকৃত ব্র্যান্ডের নাম “থাম্বড্রাইভ”। আইবিএম

Get the kotha app

ট্রেক টেকনোলজি এবং আইবিএম সর্বপ্রথম ইউ এস বি ফ্লাশ ড্রাইভ বাজারে ছাড়ে ২০০০ সালে। ট্রেক টেকনোলজি একটি সিংগাপুরের কম্পানি। ট্রেক টেকনোলজি কর্তৃক প্রথম বাজারজাতকৃত ব্র্যান্ডের নাম “থাম্বড্রাইভ”। আইবিএম কর্তৃক বাজারজাতকৃত প্রথম ফ্লাশ ড্রাইভের নাম ছিল “ডিস্কঅনকি”। এটি একটি ইসরাইলি কম্পানি এম-সিস্টেমস কর্তৃক উদ্ভাবিত। উত্তর আমেরিকায় ইউ এস বি ফ্লাশ ড্রাইভ লভ্য হয় ২০০০ সালের ১৫ ই ডিসেম্বর। প্রথম “ডিস্কঅনকি” এর ধারণ ক্ষমতা ছিল ৮ মেগা বাইট। ট্রেক টেকনোলজি এবং নেটাক টেকনোলজি উভয় কম্পানি তাদের কৃতিস্বত্ব ধরে রাখার চেষ্টা করে। যুক্তরাজ্যের একটি আদালত ট্রেক টেকনোলজির কৃতিস্বত্ব বাতিল করে।

ইউএসবি ফ্লাশ ড্রাইভ ফ্লাশ ডাটা স্টোরেজ ডিভাইস এবং ইউএসবি ইন্টারফেস এর সমন্বয়ে গঠিত। ইউএসবি ফ্লাশ ড্রাইভ সাধারণত সিস্টেম থেকে বিচ্ছিন্নকরণযোগ্য এবং এতে পুনরায় ডাটা লিখা যায়। এটি বাহ্যিকভাবে ফ্লপি ডিস্ক বা অপটিক্যাল ডিস্ক থেকে অনেক ছোট। অধিকাংশ ইউএসবি ফ্লাশ ড্রাইভের ওজন ৩০ গ্রাম এর চেয়ে কম। আকার ও খরচ ঠিক রেখে ২০১৩ সালে ৫১২ গিগাবাইট ধারণক্ষমতা পর্যন্ত ইউ এস বি ফ্লাশ ড্রাইভ তৈরী করা সম্ভব হয়েছে । ২০১৩ সালের কনজিউমার ইলেক্ট্রনিক শো’তে ১ টেরাবাইট ধারণক্ষমতার ফ্লাশ ড্রাইভ দেখানো হয়েছে এবং পরে সে বছরেই তা বাজারে আসে। কিছু ইউএসবি ফ্লাশ ড্রাইভে ১০,০০,০০০ বার তথ্য লেখা এবং মোছা যায় এবং মেমোরি চিপের ধরনের উপর ভিত্তি করে ১০ বছর পর্যন্ত দোকানে বিক্রয়ের জন্য রাখা যেতে পারে।

🔅 ছবি ও কিছু তথ্য উইকিপিডিয়া থেকে সংগৃহীত।
🔅 ‘আবিষ্কারের কথা’কে কিছু জানাতে এবং জানতে পারসোনাল প্রোফাইলে যোগাযোগ করতে পারেন।
▪Personal Kotha account⤵
🆔 HaBil
https://link.kotha.app/app/user/preview/34bgf66x2

Get the kotha app

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *