Categories
Life Hacks

পেন্সিলের কিছু বিশেষ ব্যবহার

◽পেন্সিল :

বাড়িতে ছোটবেলার রাবার-যুক্ত পেন্সিল জমে জমে ঘর একেবারেই অগোছালো হয়ে গিয়েছে? আজকে আপনাদের সুবিধার জন্যে জানিয়ে দিচ্ছি কিভাবে পেন্সিল লেখার কাজ বাদেও অন্য কাজেও ব্যবহার করা যায়।

১. চকচকে দেয়াল থেকে মোম রঙের দাগ তুলতেঃ

পেন্সিল পিছন দিকের রাবার দিয়ে অন্য কোনও দাগ উঠুক আর না-ই বা উঠুক; দেয়ালের উপরে মোম রঙের দাগ থাকলে সেই দাগ উঠে যাবে। দেয়ালের যেখানে দাগ রয়েছে, সেখানে রাবার দিয়ে ধিরে ধীরে ঘষে তুলে ফেলুন রঙের দাগ।

২. আটকে যাওয়া চেইন ঠিক করতেঃ

প্যান্টের চেইন আটকে গিয়েছে? কোনোভাবেই খুলতে পারছেন না? একটি পেন্সিলের শীষ ঘষে নিন চেইনে ভালো করে। দেখবেন এরপর চেইন্টা বেশ সহজে আটকানো সম্ভব হবে।

৩. নতুন চাবি তালায় আঁটাতেঃ

অনেক সময় দেখা যায় যখন নতুন তালা বানানো হয়েছে, তখন তার চাবি ঠিক মতো আঁটছে না। এখন উপায়? পেন্সিলের শীষ ঘষে নিন চাবির ফুটোর মুখে। এরপর দেখবেন চাবি দিয়ে সহজে তালা খোলা যাচ্ছে।

৪. হাতের কাছে সুঁই রাখতেঃ

আপনি কি সেলাই করতে ভালোবাসেন? তবে ব্যাগে সুঁই-এর বাক্স রাখার জায়গা নেই? পেন্সিলের রাবার আটকে রাখুন বিভিন্ন মাপের সুঁই। হাতের কাছে থাকবে চটপট এই পিনকুশন।

৫. চটপট চুলের খোঁপা আটকাতেঃ

খুব অস্বস্তি লাগছে, তবে চুলের খোঁপা আটকানোর কোনও ব্যান্ড বা কাঁটা নেই সাথে? চিন্তা নেই! হাতের কাছের পেন্সিলটি দিয়েই খোঁপা আটকে নিন। স্টাইলিশ চাইনিজ খোপার কাঁটা হয়ে যেতে পারে যেকোনো পেন্সিল—নিমেষেই!

◽ছবি ও তথ্য উইকিপিডিয়া ও বই থেকে সংগ্রীহিত

◽ “কথা লাইফ হ্যাকস“কে কিছু জানাতে এবং
জানতে পারসােনাল প্রােফাইলে যােগাযােগ করুন

▶ My personal Kotha Account ⤵

🆔 ℳαΉα∂ι Ήαξαη 🎓

https://link.kotha.app/app/user/preview/34bfmycwq

▶ Facebook Account ⤵

https://www.facebook.com/mahidi.shakil.5

▶ Facebook Page ⤵

https://www.facebook.com/কথা-লাইফ-হ্যাকস-111040167357029/

▶ Instagram Account ⤵

www.instagram.com/mahadi_hassan_shakil

Categories
Life Hacks

রান্নাঘরের গুরুত্বপূর্ণ দশ টিপস

◽রান্নাঘর :

প্রতিদিনই আমাদের রান্নাঘরে নানা ঝামেলায় পড়তে হয়। কিন্তু সামান্য কিছু টিপস ফলো করে এই ঝামেলা অনেকাংশে কমিয়ে আনা সম্ভব। আপনার রান্নাঘর সম্পর্কে কিছু গুরুত্ব্পূর্ণ টিপস জেনে নিন।

একঃ

রান্নার সময়ে পাত্রের তলদেশে খাদ্যদ্রব্য আটকে যাওয়া থেকে এবং গরম তেল বাইরে ছিটকে পড়া থেকে রেহাই পেতে হলে সামান্য পরিমান লবন ছিটিয়ে দিন।

দুইঃ

অসাবধানতা বশত তরকারিতে লবন বেশি দিয়ে ফেললে একদলা মাখানো ময়দা ছেড়ে দিন। তরকারি নামানোর আগে ময়দার দলাটি তুলে নিন দেখবেন লবনের মাত্রা কমে গেছে।

তিনঃ

অনেক সময় পোলাও রান্না করতে গেলে দেখা যায় একটু বেশী নরম বা প্যাচপ্যাচে হয়ে যায় তখন নিজের কাছে খুবই খারাপ লাগে। একটি পরিষ্কার শুকনো তোয়ালে বিছিয়ে তার উপরে পোলাওগুলো ঢেলে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করে দেখুন পোলাওগুলো কেমন ঝরঝরে হয়ে যায়!

চারঃ

ফ্রেঞ্চফ্রাই বাচ্চাদের অনেক প্রিয় একটা খাবার। এটি তৈরী করার আগে কিছুক্ষণ ঠান্ডা পানিতে ভিজিয়ে তারপর শুকিয়ে ভাজলে তা অনেক বেশী মচমচে ও অধিক স্বাদের হয়।

পাঁচঃ

নেতিয়ে যাওয়া লেটুস পাতা তরতাজা করতে হলে একটু আলুর খোসা ছাড়িয়ে কুচিকুচি করে লেটুস পাতা সহ ঠান্ডা পানিতে ছেড়ে দিন দেখবেন কেমন তরতাজা হয়ে উঠেছে।

ছয়ঃ

ফ্রিজ দুর্গন্ধমুক্ত রাখতে এক টুকরো লেবু কেটে ফ্রিজে রেখে দিন। দেখবেন ফ্রিজে আর কোন গন্ধ থাকবেনা। তবে ফ্রিজ নিয়মিত পরিষ্কার করতে ভুলবেন না।

সাতঃ

দুধ ফেটে যাওয়ার ভয় থাকলে জ্বাল দেবার আগে সামান্য পরিমাণ খারাব সোডা মিশিয়ে দিন।

আটঃ

পেঁয়াজের স্বাদ ও গন্ধ টাটকা পেতে হলে পেঁয়াজ ভাজার আগে ধুয়ে কুচি কুচি করে কেটে দুধে ভিজিয়ে তারপর ভাজতে হবে।

নয়ঃ

দই তাড়াতাড়ি জমাতে হলে দুধে এক চা চামচ কর্ণফ্লাওয়ার মিশিয়ে দিন।

দশঃ

পোকার আক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে চাল বা আটা ময়দার পাত্রের মধ্যে একটা তেজ পাতা রেখে সংরক্ষণ করুন।

◽ছবি ও তথ্য উইকিপিডিয়া ও বই থেকে সংগ্রীহিত

◽ “কথা লাইফ হ্যাকস“কে কিছু জানাতে এবং
জানতে পারসােনাল প্রােফাইলে যােগাযােগ করুন

▶ My personal Kotha Account ⤵

🆔 ℳαΉα∂ι Ήαξαη 🎓

https://link.kotha.app/app/user/preview/34bfmycwq

▶ Facebook Account ⤵

https://www.facebook.com/mahidi.shakil.5

▶ Facebook Page ⤵

https://www.facebook.com/কথা-লাইফ-হ্যাকস-111040167357029/

▶ Instagram Account ⤵

www.instagram.com/mahadi_hassan_shakil

Categories
Life Hacks

টুথপিকের নানাবিধ ব্যবহার

◽টুথপিক :

১. খাবার ফুটে পড়ে যাওয়া রোধ করুনঃ

খাবার ঢেকে দিয়ে অন্যদিকে চলে গেলে তা ফুটে অনেক সময় পড়ে যায়। এই ঝামেলা থামাতে চাইলে খাবার ঢেকে দেয়ার আগে ঢাকনা এবং হাঁড়ির মাঝে দিন একটি টুথপিক। এতে করে অতিরিক্ত বাষ্প বেরিয়ে যাবে, আর কোনও খাবার ফুটে পড়ে যাবে না।

২. মাইক্রোওয়েভে আলু সেদ্ধ করুনঃ

সহজে মাইক্রোওয়েভ ওভেনে আলু সেদ্ধ করতে চাইলে চারদিকে চারটি টুথপিক আটকে দিয়ে আলুটিকে পা দিয়ে দাঁড় করিয়ে অবেনে বেক করুন। তাহলে এটি সাধারণের থেকে তাড়াতাড়ি সেদ্ধ হয়ে যাবে।

৩. সহজে মোমবাতি জ্বালাতেঃ

মোমবাতি জ্বালাতে গিয়ে হাত পুড়িয়ে ফেলার চেয়ে ভালো একটি টুথপিক জ্বালিয়ে নিয়ে তা দিয়ে মোমবাতি জ্বালান। হাত পুড়ে যাবে না।

৪. টেপের মুখে দাগ দিয়ে রাখুনঃ

স্কচ টেপ একবার ব্যবহারের পর সেটির মুখ কোথাও যেন হারিয়ে যায়। টেপের মুখ খুঁজে পেতে যাতে সহজ হয়, সেজন্যে এর মুখে একটি টুথপিক দিয়ে টেপ আটকে রাখুন। দেখবেন টেপ সহজে খুঁজে পাবেন।

◽ছবি ও তথ্য উইকিপিডিয়া ও বই থেকে সংগ্রীহিত

◽ “কথা লাইফ হ্যাকস“কে কিছু জানাতে এবং
জানতে পারসােনাল প্রােফাইলে যােগাযােগ করুন

▶ My personal Kotha Account ⤵

🆔 ℳαΉα∂ι Ήαξαη 🎓

https://link.kotha.app/app/user/preview/34bfmycwq

▶ Facebook Account ⤵

https://www.facebook.com/mahidi.shakil.5

▶ Facebook Page ⤵

https://www.facebook.com/কথা-লাইফ-হ্যাকস-111040167357029/

▶ Instagram Account ⤵

www.instagram.com/mahadi_hassan_shakil

Categories
Life Hacks

খুশকি নির্মূল করুন—গোড়া থেকেই

◽খুশকি নির্মূল :

১. অ্যাস্পিরিনঃ

অ্যাস্পিরিন, ডিস্প্রিন বা ইকোস্প্রিন নামের এই ওষুধ পাবেন যেকোনো ওষুধের দোকানে। দুটি ট্যাবলেট একেবারে গুড়া করে একবার ব্যবহার করার মতো পরিমান শ্যাম্পুর সাথে মিশিয়ে নিন। এরপর চুল ভিজিয়ে নিয়ে এই ওষুধ-মেশানো শ্যাম্পু চুলের গোড়ায় ম্যাসাজ করুন। ৫-১০ মিনিট রাখার পর সাধারণ শ্যাম্পু দিয়ে ভাল করে ধুয়ে নিন।

২. লবনঃ

শুকনা খুশকি ঠিক করতে লবনের জুড়ি মেলা ভার। চুলের গোড়ায় আলতোভাবে লবন ঘষে খুশকি তুলে ফেলুন। এরপর সাধারণ শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে অন্তত ২ দিন করলে উপকার পাবেন।

৩. অলিভ অয়েলঃ

অলিভ অয়েল সবচেয়ে চমৎকারী ওষুধ খুশকি নির্মূল করতে। ১০ থেকে ১২ ফোটা অলিভ অয়েল গরম করে নিন। এরপর সেই তেল চুলের গোড়ায় ম্যাসাজ করে মাথায় শাওয়ার পরে সারারাত ঘুমিয়ে নিন। সকালে উঠে শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত করলে চুলে খুশকি কমে যাবে।

৪. লেবুঃ

লেবুর রসের যে বিভিন্ন গুণ আছে, তা আমরা সবাই কমবেশি জানি। ২ টেবিলচামচ লেবুর রস চুলের গোড়ায় ঘষে ঘষে লাগিয়ে নিন। এরপর মাথা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। তারপরে এক কাপ পানিতে এক চা চামচ লেবুর রস মিশিয়ে সেই পানি দিয়ে চুল ধুয়ে নিন। দৈনিক এই উপায়ে চুল ধুয়ে ফেলুন যতদিন পর্যন্ত না খুশকি পুরোপুরি নির্মূল হয়ে যায়।

৫. বেকিং সোডাঃ

অনেকের বাড়িতেই বেকিং সোডা থাকে। এক মুঠো বেকিং সোডা হাতে নিয়ে চুলের গোড়ায় ম্যাসাজ করুন। ১০ মিনিট রেখে দিন। তারপর সাধারণ উপায়ে শ্যাম্পু করে চুল ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে অন্তত একবার এই উপায় ব্যবহার করলে কাজে দিবে।

৬. রসুনঃ

রসুন চুলের খুশকি দূর করে খুব ভাল করে, তবে চুল থেকে দুর্গন্ধ দূর করাটা বেশ কঠিন ব্যাপার। এক কোয়া রসুন থেতো করে নিন, যাতে রস বেরিয়ে আসে। এর সাথে মধু মিশিয়ে আঠালো লেই তৈরি করুন। এই মিশ্রণ চুলের গোড়ায় ম্যাসাজ করে লাগিয়ে নিন। আধা ঘন্টা রাখার পর শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে অন্তত ১ দিন করলে দেখবেন ১ মাসের মধ্যে খুশকি কমে এসেছে।

৭. নারিকেল তেলঃ

শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলার আগে তেল দিয়ে ম্যাসাজ করলে উপকার পাওয়া যাবে। চুল ধোওয়ার অন্তত এক ঘন্টা আগে ৩ থেকে ৫ টেবিলচামচ নারিকেল তেল আকটি বাটিতে করে কুসুম গরম করে নিন। এই তেল চুলের গোড়ায় ভালোভাবে ম্যাসাজ করে নিয়ে এক ঘন্টা (বা তার বেশি) সময় ধরে রেখে দিন। এরপর শ্যাম্পু করে চুল ধুয়ে ফেলুন। আপনি চাইলে নারিকেল তেলের গুণ-যুক্ত শ্যাম্পুও ব্যবহার করতে পারেন।

◽ছবি ও তথ্য উইকিপিডিয়া ও বই থেকে সংগ্রীহিত

◽ “কথা লাইফ হ্যাকস“কে কিছু জানাতে এবং
জানতে পারসােনাল প্রােফাইলে যােগাযােগ করুন

▶ My personal Kotha Account ⤵

🆔 ℳαΉα∂ι Ήαξαη 🎓

https://link.kotha.app/app/user/preview/34bfmycwq

▶ Facebook Account ⤵

https://www.facebook.com/mahidi.shakil.5

▶ Facebook Page ⤵

https://www.facebook.com/কথা-লাইফ-হ্যাকস-111040167357029/

▶ Instagram Account ⤵

www.instagram.com/mahadi_hassan_shakil

Categories
Life Hacks

মোবাইল ব্যাটারি কম চলছে ?

◽মোবাইল ব্যাটারি :

১. আপনার ফোনটি এয়ারপ্লেন মোডে রাখুন ব্যাটারি কম খরচ হবে

২. এয়ারপ্লেন মোডে রেখে মোবাইল চার্জ দিন আরও দ্রুত চার্জ হবে

৩. মোবাইল এ ডার্ক থিম ব্যবহার করুন চার্জ কম খরচ হবে

◽ছবি ও তথ্য উইকিপিডিয়া ও বই থেকে সংগ্রীহিত

◽ “কথা লাইফ হ্যাকস“কে কিছু জানাতে এবং
জানতে পারসােনাল প্রােফাইলে যােগাযােগ করুন

▶ My personal Kotha Account ⤵

🆔 ℳαΉα∂ι Ήαξαη 🎓

https://link.kotha.app/app/user/preview/34bfmycwq

▶ Facebook Account ⤵

https://www.facebook.com/mahidi.shakil.5

▶ Facebook Page ⤵

https://www.facebook.com/কথা-লাইফ-হ্যাকস-111040167357029/

▶ Instagram Account ⤵

www.instagram.com/mahadi_hassan_shakil

Categories
Life Hacks

চোখের নিচের কালো দাগ দূর করার উপায়

◽ চোখের নিচের কালো দাগ :

১. টমেটো :

টমেটো চোখের নীচের কালাে দাগ দূর করতে অনেক কার্যকরী ভূমিকা পালন করে। এর সাথে সাথে আপনার ত্বককে করবে কোমল
লাবন্যময়। ১ চা চামচ টমেটোর রস, ১ চা চামচ লেবুর রস মিশিয়ে নিন। এটি চোখের নিচে লাগান| ১০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। এটি
দিনে ২ বার করা চেষ্টা করুন | টমেটোর রস , লেধুর রস আর সাথে পুদিনা পাতা যােগ করে তৈরি করে নিতে পারেন দারুন একটি
হেলথ ড্রিংক। এটি আপনার চোখের নীচের কালি ভিতর থেকে দুর করতে সাহায্য করবে।

২. আলুর পেষ্ট :

১/২ টি আলু পেষ্ট করে রস বের করে নিন। ছোট ছোট তুলার বল করে সেটি আলুর রসের মধ্যে ভিজিয়ে নিন। এখন চোখ বন্ধ
করুন এবং তুলাটি চোখের ওপর রাখেন। তুলা এমনভাবে রাখবেন যাতে চোখের নিচের কালি পড়া স্থানটি ঢেকে যায়। এইভাবে
১০/ ১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

৩. ঠান্ডা চায়ের ব্যাগ :

চায়ের ব্যাগ দিয়ে ও চোখের নিচে কালি দূর করা সম্ভব। সবুজ বা কালাে চায়ের ব্যাগ ঠান্ডা করে নিন। আপনার চোখের ওপর ঠাণ্ডা
চায়ের ব্যাগটি রাখুন। ১০/ ১৫ মিনিট পর চায়ের ব্যাগ সরিয়ে ফেলুন। দিনে ২/৩ বার করার চেষ্টা করুন।

৪. ঠাণ্ডা দুধ :

প্রতিদিন ঠান্ডা দুধ ব্যবহারে আপানার চোখের নীচের কালাে দাগ দুর
করে থাকে। তুলার বল ঠান্ডা দুধে ভিজিয়ে নিন ভেজা তুলায বল
আপানার চোখে ওপর রাখুন। ১০/১৫ মিনিট পর তুলা সরিয়ে নিন।।
এরপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন এটি প্রতিদিন করাতে আপানার
চোখের নীচের কালির দাগ কমবে

৫. কমলার রস :

কমলার রস চোখের কালি দূর করার অন্যতম একটি উপায়। কমলার রসের সাথে কয়েক ফোঁটা গ্লিসরিন মিশিয়ে নিন এটি চোখের নিচে লাগান এটি শুধু চোখের নীচের কালি দুর করবে না আপনার চোখের গ্লো বাড়িয়ে দিবে বহুগুণ।

◽ছবি ও তথ্য উইকিপিডিয়া ও বই থেকে সংগ্রীহিত

◽ “কথা লাইফ হ্যাকস“কে কিছু জানাতে এবং
জানতে পারসােনাল প্রােফাইলে যােগাযােগ করুন

▶ My personal Kotha Account ⤵

🆔 ℳαΉα∂ι Ήαξαη 🎓

https://link.kotha.app/app/user/preview/34bfmycwq

▶ Facebook Account ⤵

https://www.facebook.com/mahidi.shakil.5

▶ Facebook Page ⤵

https://www.facebook.com/কথা-লাইফ-হ্যাকস-111040167357029/

▶ Instagram Account ⤵

www.instagram.com/mahadi_hassan_shakil

Categories
Life Hacks

টুথব্রাশ এর বিভিন্ন ব্যবহার

◽টুথব্রাশ :

আপনার টুথব্রাশ কি পুরানো হয়ে গেছে? আপনি কি টুথব্রাশ পুরানো হয়ে গেলে ফেলে দেন? পুরানো টুথব্রাশের যে নানা প্রকারের ব্যবহার রয়েছে, সেগুলো না জেনে থাকলে এখনই জেনে নিন এবং আপনার জীবনকে করে ফেলুন আরও সহজ।

১। গ্রেটার সাফ করার জন্য–

গ্রেটার বা কুড়ুনি দিয়ে কোনও কাজ করার পরে টুথব্রাশ দিয়ে আপনার গ্রেটার পরিষ্কার করে নিতে পারেন। এর ফলে আপনি খুব সহজেই গ্রেটার দিয়ে কাজ শেষে আটকে থাকে ময়লা সাফ করে ফেলতে পারবেন।

২। কঠিন দাগ দূর করতে –

যে কোনও দাগ দূর করাটা বেশ কষ্টকর ব্যাপার হতে পারে, বিশেষ করে যদি সেটা নরম কোনও কিছুর উপর হয়ে থাকে, যেমন ধরুন– কার্পেট। কিন্ত হাতের কাছে যদি আপনার পুরানো টুথব্রাশটি থেকে থাকে, তাহলে সহজেই সব্লিচ অথবা ভিনেগার এর সাথে মিশিয়ে টুথব্রাশ দিয়ে ঘষে দাগ উঠিয়ে ফেলতে পারবেন।

৩। চুলের রং মেশানোর জন্য –

বাসায় বসে চুলে রং মাখতে চাইলে, টুথব্রাশ এর চেয়ে ভাল উপায় আর কি হতে পারে? কারণ সেটা শুধু কাজেই নয়, সাইজেও একদম পারফেক্ট।

৪। যন্ত্রপাতি পরিষ্কার রাখতে –

পুরানো একটি টুথব্রাশ সাবান পানিতে ভিজিয়ে নিয়ে, যে কোনও যন্ত্রপাতির দাগ অথবা ময়লা পরিষ্কার করে ফেলে যেতে পারে।

৫। নখ পরিষ্কার করতে –

অনেক সময় আমাদের নখে এমন কিছু ময়লা জমে যায়, যেগুলো সহজে তুলে বের করা কঠিন ব্যাপার হয়ে উঠে। সেই ক্ষেত্রে, আপনার পুরানো টুথব্রাশ দিয়ে সুন্দরভাবে স্ক্রাব করে, জমে থাকা ময়লাগুলো তুলে ফেলে আপনার হাতকে করে ফেলতে পারেন আরও সুন্দর এবং নরম।

তাহলে আর দেরী না করে আজ থেকেই পুরানো সব টুথব্রাশ জমানো শুরু করুন এবং উপরের উল্লেখ করা পদ্ধতিতে টুথব্রাশগুলোকে কাজে লাগান।

◽ছবি ও তথ্য উইকিপিডিয়া ও বই থেকে সংগ্রীহিত

◽ “কথা লাইফ হ্যাকস“কে কিছু জানাতে এবং
জানতে পারসােনাল প্রােফাইলে যােগাযােগ করুন

▶ My personal Kotha Account ⤵

🆔 ℳαΉα∂ι Ήαξαη 🎓

https://link.kotha.app/app/user/preview/34bfmycwq

▶ Facebook Account ⤵

https://www.facebook.com/mahidi.shakil.5

▶ Facebook Page ⤵

https://www.facebook.com/কথা-লাইফ-হ্যাকস-111040167357029/

▶ Instagram Account ⤵

www.instagram.com/mahadi_hassan_shakil

Categories
Life Hacks

ঘামের দাগ দূর করার উপায়

◽ঘামের দাগ :

১. বেকিং সোডা :

১/৪ মগ পানিতে ৪ টেবিল চামচ বেকিং সোডা দিয়ে মিশ্রন তৈরি করুন। এই মিশ্রণটি কাপড়ের ঘামের দাগের অংশে ভালো করে লাগিয়ে নিন এবং একটি পুরোনো টুথব্রাশ দিয়ে ঘষে নিন। ১ ঘণ্টা এই মিশ্রণে কাপড়টি রেখে মিশ্রণটি সেট হতে দিন। এরপর সাধারণ নিয়মে কাপড় ধুয়ে ফেলুন। শুকিয়ে গেলে ঘামের দাগ একেবারেই থাকবে না কাপড়ে।

২. লেবু :

লেবুর রস এবং পানি একসাথে মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটি ঘামের দাগের উপর লাগিয়ে কিছুক্ষণ ঘষুন। তারপর ডিটারজেন্ট দিয়ে কাপড়টি ধুয়ে ফেলুন। ব্যস দেখবেন ঘামের দাগ দূর হয়ে গেছে।

৩. লবণ :

ঘামের মত জেদী দাগ দূর করতে লবণ বেশ কার্যকর। ৪ টেবিল চামচ লবণ ১ লিটার পানিতে মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণে ঘামের দাগওয়ালা কাপড়টি ভিজিয়ে রাখুন এক ঘন্টা। তারপর ডিটারজেন্ট দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

৪. ভিনেগার :

পানি ও ভিনেগার মিশিয়ে মিশ্রন তৈরি করুন। এরপর মিশ্রণটি একটি স্প্রে বোতলে নিয়ে কাপড়ের ঘামের দাগের উপর স্প্রে করে নিন। ২০-৩০ মিনিট এভাবেই রেখে দিন। এরপর কাপড় ভালো করে ধুয়ে নিন। এতে করেই কাপড়ের ঘামের দাগ দূর করতে পারবেন বেশ সহজেই।

৫. ঠাণ্ডা পানি :

ঘামের দাগ পড়া কাপড়টি ঠাণ্ডা পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর ঘষে ডিটারজেন্ট দিয়ে কাপড় দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। যদি কাপড়ে হলুদ দাগ পড়ে যায় তবে কখনো কাপড় ধোয়ায় গরম পানি ব্যবহার করবেন না।

◽ছবি ও তথ্য উইকিপিডিয়া ও বই থেকে সংগ্রীহিত

◽ “কথা লাইফ হ্যাকস“কে কিছু জানাতে এবং
জানতে পারসােনাল প্রােফাইলে যােগাযােগ করুন

▶ My personal Kotha Account ⤵

🆔 ℳαΉα∂ι Ήαξαη 🎓

https://link.kotha.app/app/user/preview/34bfmycwq

▶ Facebook Account ⤵

https://www.facebook.com/mahidi.shakil.5

▶ Facebook Page ⤵

https://www.facebook.com/কথা-লাইফ-হ্যাকস-111040167357029/

▶ Instagram Account ⤵

www.instagram.com/mahadi_hassan_shakil

Categories
Life Hacks

কফির ভিন্ন রকমের ব্যবহার

◽কফির ব্যবহার :

দ্বিতীয় অংশ :

১. হাতের গন্ধ দূর করতে

রান্নার পর হাতে অনেক সময় মাছ বা মসলার গন্ধ থেকে যায়, যা বেশ অস্বস্তিকর। এই গন্ধ দূর করতে প্রথমে ভালোভাবে হাত সাবান দিয়ে ধুয়ে খানিকটা কফির গুঁড়া হাতে নিয়ে ঘষতে হবে। তারপর হাত ভিজিয়ে স্ক্রাব করে ধুয়ে ফেলতে হবে। কফি প্রাকৃতিক ডিওডোরেন্ট হিসেবে কাজ করে যা দুর্গন্ধ দূর করতে কার্যকর।

২. বয়স ধরে রাখতে কফি

ত্বকের বলিরেখা দূর করতে বেশ উপকারী কফি। খানিকটা কফি নিন। এর অর্ধেক পরিমাণ পানি মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। সঙ্গে কয়েক ফোঁটা টি ট্রি এসেনশিয়াল তেল মিশিয়ে হাত ঘুরিয়ে ত্বকে ম্যাসাজ করতে হবে। এরপর পরিষ্কার পানি দিয়ে ত্বক ধুয়ে ফেলতে হবে।

৩. চুল পরিষ্কার করতে কফি

চুল স্টাইল করতে বিভিন্ন ধরনের প্রসাধনী ব্যবহার করা হয়। যা ভালোভাবে পরিষ্কার না করলে চুলের ক্ষতি হয়। মিহিগুঁড়া করা কফি চুলে কিছুক্ষণ ঘষে শ্যাম্পু করতে হবে। এতে চুল পরিষ্কার হয়ে যাবে। তবে কারও চুলে হালকা রং করা থাকলে কফি এড়িয়ে চলতে হবে। কারণ কফি চুলের রং গাঢ় করে ফেলতে পারে।

৪. ত্বকে জেল্লা ফেরাতে কফি

সকালে অনেকের ত্বক নিষ্প্রাণ দেখায়। সকালে শরীরকে যেমন তাজা করে কফি তেমনি ত্বকের জন্যও উপকারী।

কফি তৈরি করে তা বরফ করে নিতে হবে। সকালে ওই বরফ কফি ত্বকে ঘষতে হবে। চোখের চারপাশের ত্বকে হালকা হাতে কফি কিউব ঘষতে হবে। এতে ত্বকে রক্ত চলাচল বৃদ্ধি পেয়ে দেখতে উজ্জ্বল ও ঝরঝরে লাগবে।

৫. ফেইস মাস্ক তৈরিতে কফি

গুঁড়া করা দুই চামচ কফির সঙ্গে দুই চামচ কোকো পাউডার, তিন টেবিল-চামচ টক দই এবং এক টেবিল-চামচ মধু ভালোভাবে মিশিয়ে নিতে হবে। তারপর ত্বকে লাগিয়ে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলতে হবে।

◽ছবি ও তথ্য উইকিপিডিয়া ও বই থেকে সংগ্রীহিত

◽ “কথা লাইফ হ্যাকস“কে কিছু জানাতে এবং
জানতে পারসােনাল প্রােফাইলে যােগাযােগ করুন

▶ My personal Kotha Account ⤵

🆔 ℳαΉα∂ι Ήαξαη 🎓

https://link.kotha.app/app/user/preview/34bfmycwq

▶ Facebook Account ⤵

https://www.facebook.com/mahidi.shakil.5

▶ Facebook Page ⤵

https://www.facebook.com/কথা-লাইফ-হ্যাকস-111040167357029/

▶ Instagram Account ⤵

www.instagram.com/mahadi_hassan_shakil

Categories
Life Hacks

কফির ভিন্ন রকমের ব্যবহার

◽কফির ব্যবহার :

প্রথম অংশ :

১. স্ক্রাব তৈরিতে কফি

ত্বকের মৃত কোষ দূর করতে এক্সফলিয়েটিং স্ক্রাব হিসেবে ব্যবহার করা যায়। শুষ্ক এবং প্রাণহীন ত্বকে জেল্লা ফেরাতেও পারে।

খানিকটা নারিকেল তেল, কয়েক ফোঁটা ভ্যানিলা এসেন্স এবং পরিমাণ মতো কফি মিশিয়ে ঘন মিশ্রণ তৈরি করে তা মুখের ত্বক, শরীর, পা এবং হাত স্ক্রাবিং করতে ব্যবহার করা যাবে।

২. চোখের ফোলাভাব কমাতে কফি

শুধু মস্তিষ্কই নয়, ত্বকও সজিব করতে পারে কফি। সকালে কফি বানানোর পর নিচে যতটুকু কফির গুঁড়া পড়ে থাকে সেটা সংগ্রহ করুণ। তারপর ঠাণ্ডা করে চোখের নিচের অংশে দিয়ে ২০ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে। এতে ফোলাভাব কমে আসবে।

৩. পায়ের স্ক্রাব

পায়ের ত্বক সাধারণত শুষ্ক হয়। তাই বিশেষ যত্নে প্রয়োজন। গুঁড়া করা কফির সঙ্গে একটি পাকা কলা চটকে স্ক্রাবার তৈরি করে ব্যবহার করা যায়

৪. চুল রং ধরে রাখতে

চুলে গাঢ় বাদামি এবং কালো রং করা হলে তা দীর্ঘদিন ধরে রাখতে সাহায্য করবে কফি।

দুই কাপ গাঢ় কফি তৈরি করে নিতে হবে। এই কফি ঠাণ্ডা করে পুরো চুল ভিজিয়ে ‘শাওয়ার ক্যাপ’ বা তোয়ালে দিয়ে চুল পেঁচিয়ে রাখতে হবে। এক ঘণ্টা পর পরিষ্কার পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলতে হবে।

◽ছবি ও তথ্য উইকিপিডিয়া ও বই থেকে সংগ্রীহিত

◽ “কথা লাইফ হ্যাকস“কে কিছু জানাতে এবং
জানতে পারসােনাল প্রােফাইলে যােগাযােগ করুন

▶ My personal Kotha Account ⤵

🆔 ℳαΉα∂ι Ήαξαη 🎓

https://link.kotha.app/app/user/preview/34bfmycwq

▶ Facebook Account ⤵

https://www.facebook.com/mahidi.shakil.5

▶ Facebook Page ⤵

https://www.facebook.com/কথা-লাইফ-হ্যাকস-111040167357029/

▶ Instagram Account ⤵

www.instagram.com/mahadi_hassan_shakil

Categories
Life Hacks

💡 কথা লাইফ হ্যাকস 💡

আমাদের জার্নি শুরু ১৬ – ০৬ – ২০২০

◽ “কথা লাইফ হ্যাকস“কে কিছু জানাতে এবং
জানতে পারসােনাল প্রােফাইলে যােগাযােগ করুন

▶ My personal Kotha Account ⤵

🆔 ℳαΉα∂ι Ήαξαη 🎓

https://link.kotha.app/app/user/preview/34bfmycwq

▶ Facebook Account ⤵

https://www.facebook.com/mahidi.shakil.5

▶ Facebook Page ⤵

https://www.facebook.com/কথা-লাইফ-হ্যাকস-111040167357029/

▶ Instagram Account ⤵

www.instagram.com/mahadi_hassan_shakil