Categories
Movies

@.Movie_kotha .

#Follow ous for More new Movies and webseris @Movie kotha

#Concept art
#Marvel NOVA

Categories
Movies

# Capote 2005

May contain spoiler

1959 সালের এপ্রিল মাসে আমেরিকার কানসাস অঙ্গরাজ্যে খুবই মর্মান্তিক ভাবে একই পরিবারের ৪ জনকে হত্যা করা হয়। এটা কোন স্পয়লার না। তাই কান গেলো কান গেলো বলে চিল্লাইয়েন না। কারণ এই মুভির গল্প শুরু হয় খুনের পর থেকে।

নিউইয়র্ক টাইমস এই খুনের সংবাদ পত্রিকার প্রথম পাতায় ছাপায়। ট্রুম্যান ক্যাপটে একজন লেখক এই গল্পটিকে ফলো করার চিন্তা করে। সে সাথে সাথে কানসাস এর উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। সেখানে বাসিন্দাদের সাথে কথা বলে তথ্য সংগ্রহ করেন। এর মাঝে আসল খুনি ধরা পরে যায়।

যেহেতু ক্যাপটে একজন সাংবাদিক তাই তার এই খুনির সাথে দেখা করার সৌভাগ্য হয়। তিনি ভেবেছিলেন খুব হিংস্র কোন ব্যাক্তির সাথে তার দেখা হবে যে কিনা তাকে দেখেই হৈচৈ করবে গালাগাল দিবে, তেমন কিছুই না খুবই শান্ত ভাবে বসে আছে জানালা দিয়ে বাইরের দিকে তাকিয়ে, কেমন যেন একটা বিষন্নতা তার মাঝে। তার প্রথম প্রশ্ন ছিলো “তোমার কাছে এসপ্রিন আছে? আমার পা এ সমস্যা হচ্ছে” ক্যাপটে এই শান্ত ব্যাক্তিটির প্রতি কৌতূহল অনুভব করে ও চিন্তা করে এই ব্যক্তিকে নিয়ে সে বই লেখবে, বই লেখার এই উপসর্গ সে কি করে বের করে এই ঠাণ্ডা মাথার খুনির কাছ সেটা মুভি যত এগিয়ে যায় তার রহস্য গুলোও আস্তে আস্তে সামনে আসতে থাকে।

সম্পুর্ন সত্য ঘটনার উপর ভিত্তি করে তৈরি এই চলচ্চিত্র। ট্রুম্যান ক্যাপটে যে বইটি লেখেন ইন কোল্ড ব্ল্যাড নতুন এক ধারার জন্ম দেয়। একজন ভয়ানক খুনির মানসিক এবং মানবিক দিক গুলো এই বইতে তুলে ধরা হয়, এতে তখনকার কথিত সভ্য সমাজ বেশ হৈচৈ করে।

সিনেমার সবচেয়ে পজিটিভ দিক হলো এর অভিনয়। বিখ্যাত অভিনেতা ফিলিপ হফম্যান যেভাবে ট্রুম্যান ক্যাপটে কে পর্দায় উপস্থাপন করেছেন তা মেথড এক্টিং এর এক অনন্য উদাহরণ। হফম্যান তার এই অসাধারণ অভিনয়ের জন্য ২০০৬ এর গোল্ডেন গ্লোব, স্ক্রিন এক্টর জিল্ড, বাফটা ও অস্কার সবগুলোই অর্জন করতে সক্ষম হন।

**এই মুভি নিয়ে আরো অনেক কিছু লেখার ইচ্ছা ছিলো। চিত্রায়ন, পরিচালনা, চরিত্র গুলোর ব্যাখ্যা কত অসাধারণ ছিলো কিন্তু ছাতার মাথা এগুলো লেখে লাভ নাই, কেউ এই রিভিউ পরবেও না মুভি ও দেখবে না, এর চেয়ে কোন একটা ফালতু মুভিকে পচাইয়া পোস্ট দিলে লোকজন একটু আজাইরা মাতামাতি করতে পারে। তাও ভালো জিনিস নিয়ে লিখতে ভালো লাগে তাই কয়টা লাইন লেখালাম।**

@.Movie_kotha .

#Follow ous for More new Movies and webseris @Movie kotha

Categories
Movies

মুভির নাম লাল সবুজ

imdb rating: Rating: 7.1/10

Release Year: 2005

Genre: Crime, Mystery, Drama

No Spolier

ঢালিউডের আমার দেখা একটি চরম অ্যাকশন থ্রিলার মুভি লাল সবুজ । তবে ২০০৫ এ মুক্তি পাওয়া এই মুভির প্লট তৎকালীন অন্য যে কোন মুভির থেকে এগিয়ে ছিল।

মুভির নায়ক ছিলেন মাহফুজ আহমেদ । মুভিতে তার ক্যারেক্টারের নাম সবুজ। তার ছোট ভাই লাল । সবুজ লালকে প্রচণ্ড ভালবাসে, স্নেহ করে। লাল টিভি চ্যানেলে একজন ক্রাইম রিপোর্টার । জমশেদপুর নামের এক শহরে একের পর এক খুন হতে থাকে সাধারন মানুষ।সব খুনের পিছনে থাকে একজন সন্ত্রাসি রাঙা মামা । কিন্তু রাঙা মামাকে আজ পর্যন্ত কেউ দেখেনি। লাল জমশেদপুর যেতে চায় রাঙা মামার মুখোশ উন্মোচন করতে কিন্তু তার মা তার বিপদের কথা ভেবে তাকে যেতে দিতে চায়না। পরে সবুজের সুপারিশে তার মা রাজি হয়। ক্রাইম রিপোর্টার লাল সেখানে যায় এবং ঘটনার তদন্ত করতে করতে রাঙা মামার কাছাকাছি পৌঁছে যায় । ঠিক সেই সময় খুন হয় লাল, রাঙা মামার হাতে।

সবুজের বুকটা ভেঙ্গে যায়। লালের খুনের প্রতিশোধ নিতে কলেজের প্রফেসরের ছদ্মবেশে সবুজ এসে পৌছায় জমশেদপুরে।একে রাঙা মামা একজন ভয়ঙ্কর সন্ত্রাসী তার উপর তাকে কেউ চিনে না। সবুজকে এখন রাঙ্গাকে খুজে বের করতে হবে তারপর তাকে শেষ করতে হবে।

কাহিনির প্লট এইটুকুতেই কি গায়ে কাঁটা দেয়ার জন্য যথেষ্ট না? মুভির অ্যাকশন ভালো আর মুভির কাহিনি যেভাবে এগিয়ে যায় তাতে ডিরেক্টরের মুনশিয়ানার ছাপ পাওয়া যায়। আর পুরো মুভিতে আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে তুলে ধরা হয়েছে খুব সুন্দর ভাবে।

এই মুভির দুটি উল্লেখযোগ্য জিনিসের মধ্যে একটি হচ্ছে আসিফের গাওয়া সবুজের বুকে লাল গানটি । গানটি খুব জনপ্রিয় হয়েছিল। দ্বিতীয়ত হচ্ছে মাহফুজের অ্যাটিটিউঁড । একটি অ্যাকশন মুভিতে নায়কের ক্যারেক্টার যেমন হওয়া উচিৎ।

মুভির একদম শেষে একটা টুইস্ট আছে। বাংলা মুভিতে এরকম টুইস্ট আশা করা যায় না।

মুভিটা দেখে ফেলুন । ভালো লাগবে।

@Movie kotha .

#Follow ous for More new Movies and webseris @Movie kotha

Categories
Movies

মুভি নেম নিঃস্বার্থ ভালোবাসা ( What is love) Imdb Rating 7.4 /10 ( 8356 people voted) Producer, Director, Screenplay: Ananta Jalil

**** হালকা স্পয়লার এলার্ট ****
নিঃস্বার্থ ভালোবাসা নিঃস্বার্থভাবে তৈরি একটি সিনেমা।
এই সিনেমার একদম শুরু তেই পাবেন বাংলা সিনেমার আইকনিক সং ” ঢাকার পোলা ভেরি ভেরি স্মার্ট ” এর সাথে অনন্ত জলীলের আইকনিক ড্যান্স।
এই সিনেমায় আছে বাংলা সিনেমার আইকনিক দৃশ্য কোনো রকম অপারেশন ছাড়াই হার্ট বের করে ভালোবাসা প্রদর্শন করার সেই বিখ্যাত নিদর্শন।
“মৃত লাশকে কি কখনও কথা বলতে দেখেছো?” – এই বিখ্যাত ডায়ালগটিও এই সিনেমার।
নাচে-গানে-একশনে ভরপুর এই সিনেমাটি না দেখে থাকলে এখনই দেখে নিন। ভালোবাসাকে যেনো নতুনভাবে সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে এ সিনেমায়।
ইউটিউবে এভেলএভেল এ সিনেমাটি৷ দেরী না করে এখনই দেখে ফেলুন ☺

@Movie kotha .

#Follow ous for More new Movies and webseris @Movie kotha

Categories
Movies

মুভির নাম পি মাক মুভির ধরনঃ হরর, কমেডি, রোমান্স আএমডিবি রেটিংঃ ৭.৩/১০ নিজস্ব রেটিংঃ ৮.৯/১০

অল্প স্পইলার থাকতে পারে,
আপনার জীবনে কি প্রচুর খারাপ সময় যাচ্ছে? কোনো কিছুতেই মজা পাচ্ছেন না? একটু হাসি প্রয়োজন? কিছু কিছু মুভি আছে যেগুলো আপনাকে হাসিয়ে ছাড়বেই, তার মধ্যে পি মাক মুভিটা অন্যতম আমার দেখা! এর আগে সাউথ ইন্ডিয়ান কাঞ্চানা-৩ ছবি দেখে হয়তো কিছুটা এমন হেসেছিলাম। মুভি চালু হউয়ার পর থেকেই হাসতে শুরু করতে হবে ইনস্টেড অফ ভয় পাওয়া!

কথা ছিলো ভয় পাবো, কিন্তু ঘটলো উল্টা হাসির চোটে মুভি পজ করে কিছুক্ষন হেসে আবার প্লে করতে হয়। থাই ভাষার মুভিটা বাংলা সাবটাইটেল এভেইলেবল, বাংলা সাব দিয়ে দেখতে দেখতে এতই মুভির ভিতরে ঢুকে যাবেন যে মনেই হবে না ওরা অন্য ভাষায় কথা বলতেসে!

মুভির কাহিনি সংক্ষেপে আসি,
মাক, আর তার ৪ বব্ধু যুদ্ধের ময়দান থেকে বেচে ফিরে আসে। মাক এর বাড়িতে তার স্ত্রী নাক একা একা থাকে, নদির উপারেই মাক এর দাদিমার ঘর যা ফাকাই পরে আছে, মাকের দাদি যেহেতু মারাই গিয়েছে তাই সেই ঘরটা ফাকা পরে আছে, সেখানে মাকের বন্ধুদের থাকতে বলে। তারা সানন্দে রাজি হয়ে যায়। এলাকার মানুষের আচরণ এবং কথাবার্তায় একটু সন্দেহ হয় মাকের বন্ধুদের যে মাকের স্ত্রী মৃত! এদিকে মাক তার সুন্দরী বউ এর প্রেমে এতই পাগল যে কারো কথাই তার বিশ্বাস হয় না।

অনেক জটলা পাকাতে থাকবে মাকের স্ত্রীকে নিয়ে, বাড়ির পাশে নাকের এর লাশ পাওয়া যাবে। প্রচুর কাহিনি ঘটতে থাকবে, মাকের স্ত্রী যে মৃত এটা মাককে বুঝাতে তাদের বন্ধুদের কাজকর্ম আপনাকে হাসানোর তালেই রাখবে।

৪ বন্ধুর চার রকম ক্যারেক্টার আপনাকে প্রতিটা ক্যারেক্টর আলাদা ভাবে মজা দিবে, বিশেষ করে হেয়ার স্টাইল নিয়ে কিছু বলার নাই! আর মুভির দৃশ্বপট অসাধারণ জায়গা, যা মুভির কাহিনির সাথে ভীষন ভাবে ম্যাচ করবে।

দিনশেষে রোমান্স ক্যাটাগরির জয় হবে, ভালোবাসা মৃত বা জীবিত দেখে না। হাল্কা ইমোশনাল হইতে যাবেন, তার মধ্যেও আবার কমেডি চলে আসবে৷

যাই হোক যেটা বলার, এই ঘরানার মুভি আরো সাজেস্ট পাবার বাসোনা নিয়ে রিভিউ টা দেয়া, কারো কাছে এমন হরর+কমেডি বা এমন টাইপের মুভি সাজেশনে থাকলে আমায় সাজেস্ট করুন। আর পি মাক না দেখা থাকলে এই কোয়ারান্টাইন এ দেখে ফেলুন। ধন্যবাদ।

@Movie kotha .

#Follow ous for More new Movies and webseris @Movie kotha

Categories
Movies

১০০ জনের ভালোবাসার (followers) অনেক কাছে পৌঁছে গেছি। এভাবেই পাশে থাকুন। অসংখ্য ধন্যবাদ 💜

(সামান্য স্পয়লার)
Grave Of The Fireflies
Genr : War, Drama

গল্প:
আমেরিকান হামলায় গৃহহারা এক ভাই (Seita ) ও তার ৫বছরের ছোট বোন (Setsuko) এর সার্ভাইভাল এর কাহিনী। এক অল্পবয়সী ভাইয়ের সর্ব্বোচ্চ সংগ্রাম তার বোনের জন্য।

জাপানি ভাষায় নিমৃত এ এনিমেশনটি ১৯৮৮সালে রিলিজ হয়। তখনকার সময়কার এ এনিমেশন মুভিটি নিঃসন্দেহে হলিউডের যেকোন এনিমেশন মুভিকে টেক্কা দেওয়ার যোগ্যতা রাখে। এটি এমন একটি মুভি যেখানে আপ্নাকে চোখের জলে কাদাতে বাধ্য করবে।
-জ্বি আমি কেদেঁছি 🥺
-সত্যিই 😔
আসলে মুভির মধ্যে এমন ভাবে ডুকে গিয়েছিলাম যে মুভির প্রতিটা মূহুত্ব আমাকে আবেগে ভাসাতে বাধ্য করেছে। একটা মিষ্টি ভাই বোনের সম্পর্ক দেখে নিজের বোনের প্রতিও ভালোবাসা বাড়িয়ে দিয়েছে।
ক্যানো কি জন্য এত আবেগ সেটা মুভিই দেখলে উপলব্ধি করতে পারবেন।
জীবনে একবার হলেও সকলকে এ মুভি দেখা উচিত।
এটা একটি পিওর মাষ্টারপিস ❤❤
( বি: দ্র: কানে হেডফোন লাগিয়ে এক নাগাড়ে দেখতে থাকুন একটি অন্য ফিল পাবেন )

@Movie kotha .

#Follow ous for More new Movies and webseris @Movie kotha

Categories
Movies

১০০ জনের ভালোবাসার (followers) অনেক কাছে পৌঁছে গেছি। এভাবেই পাশে থাকুন। অসংখ্য ধন্যবাদ 💜

# **নামঃ Parasite (2019) [No spoiler]**

IMDb: 8.7/10, Rotten Tomatoes 99%,

Metacritic 96% and Google: 4.5/5

ধরণঃ Thriller/Comedy সময়ঃ ২ঘন্টা ২ মিনিট।

***————————————————-***
# **>>ছবিটির কোন জিনিষটা সব থেকে বেশি অবাক লেগেছে?**

ঃ ছবিটা দেখার পরে যখন জানতে পারলাম এই ছবিতে ৪০০ এর থেকেও বেশি VFX করা দৃশ্য আছে, অর্থাৎ ছবির ৩ ভাগের ১ ভাগ জুড়েই VFx দিয়ে ভরা। তখন একদম টাস্কিতো না হয়ে পারা যায় না।

লেখকের একটি সুন্দর গল্পকে কল্পনার মতো ফুটিয়ে তোলার জন্যে এতোটাই ন্যাচারাল ও রিয়েলিস্টিক ও নিখুত vfx ও cgi এর কাজ করা হয়েছে, যা বিন্দু মাত্র বোঝার উপায় নাই। গল্পের দরকার তারা সেট বানিয়ে নিয়েছে।

**———————————————**
# **প্লটঃ**

বাবা, মা, ভাই, বোন নিয়ে একটি গরিব পরিবার। কিভাবে করে তারা শুধু বুদ্ধির (নাকি কু-বুদ্ধি?) জোরে একটি কোটিপতি পরিবারে একজন একজন করে সবাই চাকুরি নেয় বার্তি উপার্জনের জন্যে এবং কিভাবে লোভ তাদের জন্যেই বিপদ হয়ে আসে।

**———————————————-**
# **এক্টিং? **

অসাধারণ, সাবলীল অভিনয়, যেখানে যতটুক দরকার, তাই আছে।

তবে যারা অভিনয় নিয়ে অস্কার লেভেল এর খুত ধরেন, তাদের কাছে কিছু কিছু স্থানে মনে হতে পারে যে, এই স্থানে আরেকটু বেশি এক্সাইটমেন্ট দরকার ছিলো।

**———————————————-**
# **প্যারেন্টাল গাইডঃ**

ছবিতে মাঝা মাঝি থেকে কিছু হালকা লিপ কিস আছে ও শেষের দিকে স্বামীস্ত্রীর মাঝে কিছু উন্মক্ত ধরনের দৃশ্য আছে যা ৩০ সেকেন্ডের মতো ধরে চলতে পারে।

শেষ দিকে কিছু সহিংসতার দৃশ্য আছে।

**————————————————-**
# **কাদের ভালো লাগবে?**

আপনারা যারা ছবিতে গল্প, অভিনয় সব কিছু পার্ফেক্ট চান,

তুলনামুলক ধীরগতি পছন্দ করেন তাদের ভাল লাগবে।

শুরুতে হালকা পাতলা কমেডি আছে, করিয়ান/চাইনিজ কমেডি যারা দেখে অভ্যস্ত আছেন, তারা ধরতে পারবেন এবং আসলেই মজা পাবেন। অভ্যাস না থাকলে খুব ল্যাম মনে হবে কমেডি।

ছবির মাঝা মাঝি গিয়ে নিজের ভেতরে থ্রিল ফিল করবেন।

এই সব ক্যাটাগরির বাহিরে যারা মারা মারি, ফ্যান্টাসি, সুপার পাওার, ছবি দেখেন, বা যারা অনেক কাজের চাপ নেন তাই ব্রেইন কে রিল্যাক্স দিতে ছবি দেখেন, তাদের জন্যে এই ছবি নয়।

#যার সিনেম্যাটগ্রাফি, ভি,এফ,এক্স, ইত্যাদি নিয়ে কাজ করছেন, তাদের জন্যে এটি একটি অসাধারণ মাস্টারপিস।

## *###Ending টা অনেকের কাছে গ্রহন যোগ্য নাও হতে পারে, বিশেষ করে যাদের ব্রেইনের লেফট সাইড বেশি কর্মক্ষম। আমার ব্রেইন কোন দিকেই কর্মক্ষম না, তার পরেও এক দম শেষের মিল(নাকি অমিল?) টা না দেখালেও পারতো। *

———————————————-
## ******movie টির ইংলিশ ডাবিং আসার সম্ভাবনা কোনভাবেই নেই। কিন্তু হিন্দি ডাবিং আছে। English sub দেখে মুভি দেখায় অভ্যস্ত তাহকে বেশি মজা পাবেন।***

ধন্যবাদ
@Movie kotha .

#Follow ous for More new Movies and webseris @Movie kotha

Categories
Movies

@Movie kotha .

#Follow ous for More new Movies and webseris @Movie kotha

বাচাঁ-মরার লড়াইয়ে মানুষ কখনও কখনও লড়াই করতে চায়। আবার কখনও কখনও নিজের জীবন নিয়ে পালিয়ে আসতেও চায়। অনেক সময় মানুষ নিজের জীবন নিয়ে পালিয়ে বাচঁতে চায় কারন তাদের হাতে লড়াইয়ের সুযোগ থাকে না । তবে অনেকে হেরে গিয়ে নয় লড়াই করে বেচেঁ ফিরতে চায়। তা যদি সিনেমায় টান টান উত্তজনার মধ্যে দিয়ে শেষ হয় । তবে তা বিনোদনের জন্য একদম পারফেক্ট তার সাথে মারাত্মক বিজিএম ❤ শেষ কয়েকদিন ধরে আমার দেখা তেমনি ৪টি সিনেমার রিভিউ আজকে …..

1. UNDERWATER
2. CRAWL
3. THE MEG
4. 47 METERS DOWN : Uncadge

🖲(NO Spoiler : তবে প্লট সম্পর্কে ধারনা দেওয়া হয়েছে) 🖲

**********
🎬 Underwater (2020)
Gener : Action, Horror & Sci-Fi
Cast : Kristen Stewart, Vincent Cassel, Mamoudou athie, Jessica Henwick & Others…..
▪Directed by William Eubank
বর্তমানে মানুষের জানা- আজানার নেশাই একদিন পৃথিবী ধ্বংসের মূল কারন হবে। ধৈর্যের ও সীমা আছে সেটা যতই নিরব হোক না কেন। তবে আঘাত যখন নিজের টিমের উপর আসে তখন নিজের টিমকে নিজে বাচাঁতে কখনও পিছু হওয়া যায় না। সেটা হোক না কেন নিজের জীবনের বিনিময়ে । সত্যিকারের টিমমেট হলে অনেকে নিজের জীবনের বিনিময়ে হলেও বাকিদের বাচাঁতে চেষ্টা করে…..

প্লট:-
সমূদ্রের তলদেশে ৩৬০০০ ফুট নিচে একটি ড্রিল স্টেশন এবং যেখানে কর্মরত কিছু মানুষের বাচাঁ-মরার লড়াই নিয়েই এ সিনেমা। কিছু মানুষ লোভে এতটাই আটকে গেছে যে তাদের সমুদ্রসীমার নিচে নামতে হচ্ছে। তবে কথায় আছে না, “সব কিছুর না থাকুক, নিরবতার একটা শব্দ নিশ্চয়ই আছে।” ঠিক তেমনি একসময় নিরবতার রক্ষক সমুদ্রের নিচে ড্রিল করা সেই স্টেশনে হঠাৎ ড আঘাত আনে তাদের পরিবেশকে ধ্বংসের হাত থেকে বাচাঁনোর জন্য। আর তা থেকেই শুরু হয় ড্রিল স্টেশনে থাকা মানুষগুলোর বাচাঁ মরার লড়াই।

Action ফ্লিম হিসেবে একদমই পারফেক্ট । কয়েকবার দেখার মতো। এ সিনেমায় আমার সাথে প্রথম পরিচয় Kristen এর। এ সিনেমা সবচেয়ে আসাধারন ছিল Kristen এর লুকটা। মারাত্মক ভাবে মানিয়েছে ❤। হলিউডে নীল তিমি/হাঙ্গর/ এলিগেটর নিয়ে অনেক সিনেমাই হয়েছে তবে এ সিনেমায় একটু ভিন্ন। যুদ্ধ সমুদ্রের তলদেশে হলেও এবার তিমি আর হাঙ্গর নয়। সিনেমেটোগ্রাফি বেশি ভাল্লাগছে। কিছু কিছু সময় তো এমন মনে হবে একটু পর কি হবে কি হবে নিজেই টেনশন এ থাকবেন। তার সাথে মারাত্মক বিজিএম তো আছে। এ সিনেমায় কোনো কমেডি নেই । তবে অনেকটা ইমোশনাল হয়ে পড়বেন। টান টান উত্তেজনা নিয়ে শুরু টান টান উত্তেজনা নিয়েই শেষ হয়। পুরো সিনেমায় উত্তেজনা জটিল ভাবে ধরে রাখতে পারছে পরিচালক। শেষের সীনটা তে Kristen কি যে করলো 💔💔💔

*****
🎬 Crawl (2019)
Gener : Drama, Horror & Thriller
Cast : Keya Scodelario, Barry papper & Others….
▪Directed by Alexandre aja
পরিবার যতই দূরে থাকুক না কেন পরিবার পরিবারই । তবে বাবার সাথে মেয়ের সম্পর্ক একটু বেশিই আলাদা। তবে সে ক্ষেত্রে যদি মা না থাকে, তখন বাবাই পরিবারের সব হওয়ার কথা। কিন্তু বছর চলে গেলেও বাবার সাথে হয় না কথা। তবে সত্যি বলতে কি সম্পর্কের মূল্য মানুষ একদিন ঠিকই বুঝে। হয়ত কেউ হারিয়ে। কেউবা হারাতে গিয়ে…

প্লট :-
বারিবর্ষনে একটি মেয়ে তার বাবার খোঁজ নেওয়ার জন্য তাদের নিজস্ব বাড়িতে ফিরে আসে যেখানপ সম্পূর্ণ পথ বন্ধ বন্যার কারনে প্রবেশ ও নিষেধ। যদিও মেয়েটির বাবার সাথে মেয়েটির এখন তেমন কোনো সম্পর্ক নেই, কথাও হয় না তেমন। সম্পর্কের ভাঙ্গন অনেকটা । তবুও বড় বোনের জন্য তার নিজের বাবার খোজঁ নিতে আসা। বারিবর্ষণ এর ফলে শুরু হয় বন্যা যার ফলে চারদিকে ছড়িছিটিয়ে পড়ে সেখানের স্থানীয় কিছু এলিগেটর(কুমির) তবে মেয়েটিকে বেচেঁ ফিরতে হবে তার বাবাকে নিয়ে …….

এ সিনেমার মূল ভিত্তি ছিল বিজিএম। মারাত্মক বিজিএম । যারা ভয় পাবে না বলে তাদের ও ভয় পাইয়ে দেওয়ার মতে বিজিএম। হঠাৎ হঠাৎ স্টং বিজিএম সাথে এলিগেটরদের মুভমেন্টগুলো জোস ছিল। তবে এ সিনেমা সুন্দর একটি ইমেশনাল ফ্যামিলি ড্রামাও বটে। সম্পর্কের দূরত্ব বাড়লেও টান কমে না সেটাও দেখানো হয়েছে। টান টান উত্তেজনা তো আছেই। কোনো কমেডি নেই তবে সিনেমায় অনেক অংশে ইমেশনাল করে দেয়। অভিনয়ে মেয়েটাকে রোবট রোবট লাগে এর বেশি কিছু না।

******
🎬 The Meg (2019)
Gener : Action Horror & Sci-Fi
Cast : Jason Statham, Bingbing Li & Others….
▪Directed by Jon Turteltaub
এ সিনেমাটা হলিউডের আট/দশটা Action সিনেমার মতোই। কমেডি + Jason Statham এর একশন 🔥। ফমিলি ড্রামা ছিল তবে অল্প পরিচালক নিজেই ফুটিয়ে তুলে নি।

প্লট:- গভীর সমুদ্রের একটি রিসার্চ সেন্টার থেকে একটি রিসার্চ টিম “মারিয়ানা ট্রেঞ্চ” নিয়ে গবেষনা করতেছে । তবে তারা আরো গবেষনার জন্য গভীরে কি আছে সেটা জানার জন্য কয়েকজন কর্মীকে আরো গভীরে পাঠায়। তবে কর্মীদের রিসার্চ শুরু হওয়ার আগে তাদের যানটিতে বিশাল কিছু একটা জোরে আঘাত করে। যার ফলে যানটি বিকল হয়ে পড়ে

Categories
Movies

LINK দেওয়া হবে কমেন্ট করুন ধন্যবাদ 🙏❤